আবহাওয়া বিশ্বঘড়ি মুদ্রাবাজার বাংলা দেখা না গেলে                    
শিরোনাম :
রোহিঙ্গাদের ওপর সেনাবাহিনীর নৃশংসতা যুদ্ধাপরাধের শামিল: মার্কিন সিনেটর      কুমিল্লায় নগরীতে যুবককে গলা কেটে হত্যা      এমপি কেয়া চৌধুরী’র উপর হামলার ঘটনায় তারাসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা      সৈয়দপুরে হঠাৎ দেখা কাদের-ফখরুলের      সংসদে প্যারাডাইস-পানামা পেপারসে বাংলাদেশিদের বিস্তারিত তথ্য প্রকাশের দাবি      সোমবার দুপুরের মধ্যে মুগাবের পদত্যাগ চায় তার নিজ দল      প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা বনাম কোচিং       
ই-কপিরাইট সেবার উদ্বোধন
Published : Thursday, 24 August, 2017 at 4:14 PM
ই-কপিরাইট সেবার উদ্বোধনডেস্ক রিপোর্ট: প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসের যৌথ আয়োজনে ‘ই-কপিরাইট সেবা’ এর উদ্বোধন করা হয়েছে। গত ২৩ আগষ্ট ২০১৭, বুধবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসেব উপস্থিত থেকে এই সেবার উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান নূর, এমপি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মূখ্য সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব জনাব মোঃ ইব্রাহীম হোসেন খান। অনুষ্ঠানটিতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) এবং এটুআই প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক জনাব কবির বিন আনোয়ার।
ইউএনডিপি এবং ইউএসএইডের কারিগরি সহায়তায় একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রামের সার্ভিস ইনোভেশন ফান্ডের সহায়তায় ‘ই-কপিরাইট’ সেবা ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। এর মাধ্যমে এখন বাংলাদেশের যেকোন জায়গা থেকে যেকোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান তাদের তৈরি সাহিত্যকর্ম, নাট্যকর্ম, সংগীতকর্ম, রেকর্ডকর্ম, চলচিত্র বিষয়ক কর্ম, বেতার ও টেলিভিশন সম্প্রচার, ডিজিটাল কর্ম ইত্যাদি নিবন্ধনের জন্য বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসের ওয়েবসাইট (http://www.copyrightoffice.gov.bd/) থেকে আবেদন করতে পারবেন। প্রত্যেকটি আবেদন একটি স্বয়ংক্রিয় উপায়ে যাচাই বাছাইয়ের পর পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে এসএমএস এর মাধ্যমে আবেদনকারীকে জানিয়ে দেওয়া হবে। নির্দিষ্ট তারিখে কপিরাইট সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে। এই সেবায় প্রয়োজনে ই-সার্টিফিকেটও পাওয়া যেতে পারে, যা পরবর্তিতে অনলাইনে যেকোন সময় যাচাই করা যাবে।
অনুষ্ঠানে বেসিস সভাপতি জনাব মোস্তাফা জব্বার তাঁর বক্তব্যে বলেন, আমাদের দেশে মেধার অভাব নেই। তবে তা সংরক্ষণে প্যাটেন্ট বা কপিরাইট নিবন্ধনে তেমন উদ্যোগ নেই। এর পেছনে মূল সমস্যাটি হচ্ছে এই বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সচেতনতার অভাব রয়েছে। তাছাড়া কপিরাইট আইনটি অনেক পুরনো, যার মাধ্যমে আমাদের সফটওয়্যার বা ডিজিটাল কর্মসমূহকে সাহিত্যকর্ম এর অধীন নিবন্ধন করতে হয়। আইনটি বহু বছর ধরে বার বার অনুরোধ ও পদক্ষেপ নিয়ে অবশেষে প্রতিটি লাইন পর্যালোচনা করে সংস্কার করা হচ্ছে। আর এতে সফটওয়্যার কর্মসমূহকে ডিজিটাল কর্ম হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে ডিজিটাল কর্ম হিসেবেই কপিরাইট নিবন্ধনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।
তিনি একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম এবং মন্ত্রণালয়কে ‘ই-কপিরাইট সেবা’ এর পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করার জন্য “ইপ্সিতা” নামক দেশীয় সফটওয়্যার কোম্পানিকে দায়িত্ব দেওয়া এবং এর পাশাপাশি দেশীয় সফটওয়্যার কোম্পানির উপর আস্থা রাখায় ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, দেশীয় সফটওয়্যার কোম্পানিসমূহ হচ্ছে দেশের সন্তান। আপনারা এই সন্তানদের উপর বিশ^াস রাখুন। বিদেশী কোম্পানিকে দি য়ে কাজ করানোর ফলাফল আপনারা বাংলাদেশ ব্যাংক বা এমআরপি পাসর্পোট এর উদাহরণ থেকেই পাচ্ছেন। জনাব মোস্তাফা জব্বার আরও বলেন, ‘ই-কপিরাইট সেবা’ এর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে মেধাস্বত্ত্ব সংরক্ষণে একটি মাইলফলক অর্জিত হলো। তবে সফটওয়্যার বা ডিজিটাল কর্মসমূহের ক্ষেত্রে কপিরাইট থেকেও গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে প্যাটেন্ট। কিন্তু দুঃখজনক বিষয় হলো এখন পর্যন্ত প্যাটেন্ট আইন আপডেট করা হয়নি। ১৯১১ স ালের আইন দিয়ে আমরা ডিজিটাল উদ্ভাবনের প্যাটেন্ট করতে পারিনা। প্রসঙ্গত তিনি বিজয় এর প্যাটেন্ট করার করুণ স্মৃতির কথাও স্মরণ করেন। তিনি অবিলম্বে প্যাটেন্ট ও ডিজাইন আইন আপডেট করার দাবি জানান।
অতঃপর অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সংস্কৃতি মন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান নূর, এমপি অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। তিনি বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস এবং একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রামকে ধন্যবাদ জানান। তিনি তাঁর উদ্বোধনী বক্তব্যে বলেন, এই আধুনিক অনলাইন সিস্টেম তৈরি করার মাধ্যমে নাগরিকদের আরও দ্রুত সঠিক সেবা দেওয়া সম্ভব হবে। এই ই-সেবা ব্যবস্থার প্রচারের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণে নির্দেশ দেন।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসের রেজিষ্টার জনাব জাফর আর. চৌধুরী এবং একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রামের ইনোভেশন ফোরামের পরিচালক জনাব মোস্তাফিজুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস, এটুআই প্রোগ্রামের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগন ও বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মী, লেখক, প্রকাশক, শিল্পী ছাড়াও বেসিসের প্রায় অর্ধশতাধিক সদস্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। সূত্র: প্রেস রিলিজ







তথ্য-প্রযুক্তি পাতার আরও খবর
আজকের রাশিচক্র
সম্পাদক : ইয়াসিন আহমেদ রিপন

ঝর্ণা মঞ্জিল, মাষ্টার পাড়া, মাইজদী, নোয়াখালী। ঢাকা: ৭৯/বি, এভিনিউ-১, ব্লক-বি, মিরপুর-১২, ঢাকা-১২২৬, বাংলাদেশ।
ফোন : +৮৮-০২-৯০১৫৫৬৬, মোবাইল : ০১৯১৫-৭৮৪২৬৪, ই-মেইল : info@bdhotnews.com