আবহাওয়া বিশ্বঘড়ি মুদ্রাবাজার বাংলা দেখা না গেলে                    
শিরোনাম :
কুমিল্লায় সিভিল সার্জন অফিসের নাম ভাঙ্গিয়ে চলছে ভুয়া হাসপাতাল ও ভুয়া ডাক্তার       বিএনপিতে রাজনীতিকরা উপেক্ষিত: ব্যবসায়ী ও পেশাজীবীদের জয়জয়কার!      রামপুরা থানা আওয়ামীলীগের কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পদ পাচ্ছে বিএনপি-জামায়াত নেতারা!      নিষিদ্ধ বিট কয়েনের গোপন বাজারে ছদ্মনামে লেনদেন      বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়াতে মানবপাচারের নতুন রুট ইন্দোনেশিয়া       দিনদিন বাড়ছে ডাক্তারের সংখ্যা: গত পাঁচ বছরে ২৫ হাজার এমবিবিএস ডাক্তার      ডিএনসিসি উপনির্বাচন: আদালতের মাধ্যমে উপনির্বাচন স্থগিত করার আশঙ্কাই সত্য হলো      
সৌদি সরকারের সিদ্ধান্তে পথে বসছে ৫ হাজার বাংলাদেশী পরিবার: নিশ্চুপ বাংলাদেশ এ্যামবেসী!
Published : Tuesday, 7 June, 2016 at 12:18 AM
সৌদি সরকারের সিদ্ধান্তে পথে বসছে ৫ হাজার বাংলাদেশী পরিবার: নিশ্চুপ বাংলাদেশ এ্যামবেসী!রিয়াদ প্রতিনিধি: গত ৩জুন শুক্রবার সকাল ৭ টায় সৌদি আরব, রিয়াদ, বাথা, আল ওজির মার্কেটে ভয়াবহ আগুন লাগে যার প্রাথমিক ক্ষতির পরিমাণ ১০০ কোটি টাকার সম পরিমান বলে জানা গেছে। আল ওজির মার্কেটে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের ৪৪২টি পাইকারী গার্মেন্টস আইটেমের দোকান রয়েছে। যার প্রতিটি দোকানের পজিশন কিনতে বাংলাদেশ ব্যবসায়ীদের সৌদি রিয়ালে ১ লক্ষ থেকে ২ লক্ষ রিয়াল খরচ হয়েছে। যা বাংলাদেশি টাকায় হবে ২০ লক্ষ ৫০ হাজার থেকে ৪১ লক্ষ টাকা।  ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখেই শুধু ৬০০ কোটি টাকার গার্মেন্টস পন্য শিপ এবং করগোতে রয়েছে। মূলতঃ এই মার্কেটে বিক্রি করার উদ্দেশ্যেসৌদি সরকারের সিদ্ধান্তে পথে বসছে ৫ হাজার বাংলাদেশী পরিবার: নিশ্চুপ বাংলাদেশ এ্যামবেসী! মাল গুলো আনা হচ্ছে। আল ওজির মার্কেট থেকে পাইকারীভাবে ক্রয় করে সম্পূর্ণ সৌদি আরব, ইয়েমেন, বাহারাইন সহ বিভিন্ন দেশে বিপনন হয়।
কিন্তু, আগুন লাগার পর সৌদি সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এ মার্কেটটি বন্ধ করে দিবে। এতে বাংলাদেশী গার্মেন্টস পাইকারী বিক্রেতাদের ক্ষতি সর্ব সাকূল্যে ক্ষতির পরিমাণ দাড়াবে ১ হাজার কোটি টাকা। সেই সাথে এই ব্যবসার সাথে জড়িত প্রায় ৫ হাজার পরিবার পথে বসে যাবে। 
সৌদি সরকারের সিদ্ধান্তে পথে বসছে ৫ হাজার বাংলাদেশী পরিবার: নিশ্চুপ বাংলাদেশ এ্যামবেসী!এই বিষয়ে আল ওজির মার্কেটের ব্যবসায়ী মীর জসিম জানান, বাংলাদেশী গার্মেন্টস পন্য সৌদি আরবসহ আরব বিশ্বে বিপননে আল ওজির মার্কেটের ব্যবসায়ীরা বড় ভূমিকা রাখি। মূলতঃ বাংলাদেশের গার্মেন্টস পন্য আমরা সৌদি আরবে আমদানী করে এনে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছি। কিন্তু, সৌদি সরকারের সীদ্ধান্তে যদি আল ওজির মার্কেট বন্ধ হয়ে যায়, আমরা সবাই পথে বসব। সেই সাথে বাকীতে বাংলাদেশী বিভিন্ন গার্মেন্টস থেকে পন্য তৈরী করে আনা গার্মেন্টস গুলোও বড় রকমের অর্থনৈতিক হুমকীর মাঝে পড়বে। সবচেয়ে বড় বিষয় সৌদি সহ আরব বিশ্বের মার্কেটকে টার্গেট করে গড়ে উঠা বাংলাদেশী গার্মেন্টস গুলো চালান কঠিন হয়ে যাবে। ঈদকে সামনে রেখে ব্যবসায়ীরা যখন ক্ষতি পুষিয়ে দাড়ানোর চেষ্টা করছে, এই অবস্থায় আল ওজির মার্কেট বন্ধ করার সীদ্ধান্ত আমাদের পথে বসানোর নামান্তর। তাই শীঘ্রই রিয়াদে অবস্থিত বাংলাদেশী দূতাবাস এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবে বলে সকল বাংলাদেশী ব্যবসায়ী আশা করছেন। কিন্তু, এখনও বাংলাদেশ এ্যামবেসীর পক্ষ থেকে কোন রূপ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি।








প্রবাসী বাংলা পাতার আরও খবর
আজকের রাশিচক্র
সম্পাদক : ইয়াসিন আহমেদ রিপন

ঝর্ণা মঞ্জিল, মাষ্টার পাড়া, মাইজদী, নোয়াখালী। ঢাকা: ৭৯/বি, এভিনিউ-১, ব্লক-বি, মিরপুর-১২, ঢাকা-১২২৬, বাংলাদেশ।
ফোন : +৮৮-০২-৯০১৫৫৬৬, মোবাইল : ০১৯১৫-৭৮৪২৬৪, ই-মেইল : info@bdhotnews.com